মসজিদে মুসল্লি সীমিত রাখার অনুরোধ

0
520

বিশিষ্ট আলেম-ওলামাদের পরামর্শ অনুযায়ী করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে দেশের শুক্রবারের জুমাসহ সকল জামাতে মুসল্লিদের উপস্থিতি সীমিত রাখার অনুরোধ জানিয়েছে ইসলামিক ফাউন্ডেশন।

এছাড়া ভাইরাস থেকে সুরক্ষা নিশ্চিত না হয়ে মসজিদে গমন না করার আহ্বান জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

এর আগে ইসলামিক ফাউন্ডেশন মুসল্লিদের নিরাপদ রাখতে বেশকিছু পরামর্শ দেয়। গত মঙ্গলবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে ইসলামিক ফাউন্ডেশনে আয়োজিত বৈঠকে মিলিত হয়ে সাধারণ মানুষের জন্য কিছু পরামর্শ দেয়।

পরামর্শগুলো হলো:
করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে এবং মানুষের ব্যাপক মৃত্যুঝুঁকি থেকে সুরক্ষার জরুরি পদক্ষেপ হিসেবে সব ধরনের জনসমাগম বন্ধের পাশাপাশি মসজিদসমূহে জুমা ও জামাতে মুসল্লিদের উপস্থিতি সীমিত রাখা।

মসজিদ বন্ধ থাকবে না জানিয়ে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ থেকে সুরক্ষা নিশ্চিত না হয়ে মসজিদে গমন না করা। সরকার ও বিশেষজ্ঞরা সতর্কতার জন্য যেসব নির্দেশনা প্রদান করছেন তা মেনে চলা। অপরাধমূলক কাজকর্ম থেকে বিরত হয়ে ধর্মীয় অনুশাসন মেনে চলা।

ইসলামিক ফাউন্ডেশন জানায়, বিশ্বব্যাপী বিরাজমান করোনা ভাইরাস মহামারির প্রেক্ষাপটে পবিত্র কুরআন ও সুন্নাহ আলোকে দুর্যোগকালীন সময়ে ইসলামের বিধি-বিধান অনুসরণের জন্য দেশের বিশিষ্ট আলেমগণ জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

বৈঠকে আল-হাইআতুল উলয়া লিল জামি’আতিল কওমিয়া বাংলাদেশের কো-চেয়ারম্যান আল্লামা আব্দুল কুদ্দুস, মারকাযুত দাওয়ার শিক্ষাসচিব মুফতি মুহাম্মদ আবদুল মালেক, শায়খ যাকারিয়া (র.) ইসলামিক রিসার্চ সেন্টারের মহাপরিচালক মুফতি মীযানুর রহমান সাঈদ, বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের সিনিয়র পেশ ইমাম মাওলানা মিজানুর রহমান, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মুফতি মাওলানা মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ, তেজগাঁও জামেয়া ইসলামিয়ার শায়েখুল হাদিস ড. মাওলানা মুশতাক আহমদ, বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের পেশ ইমাম মুফতি মুহিব্বুল্লাহিল বাকী নদভী, পেশ-ইমাম মাওলানা মহিউদ্দিন কাসেম, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মুহাদ্দিস মুফতি ওয়ালিয়ুর রহমান খান প্রমুখ

সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, ‘করোনাভাইরাস ডিজিজ ২০১৯’  (কভিড-১৯)-এ বিশ্বের প্রায় ২০০টি দেশ ও অঞ্চল আক্রান্ত হয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে পাঁচ লাখ। ২৩ হাজার ছাড়িয়েছে মৃতের সংখ্যা। 

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কন্ট্রোল রুমের তথ্য অনুযায়ী, দেশে এই পর্যন্ত পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল পর্যন্ত হোম কোয়ারেন্টিনে ছিলেন মোট ৩০ হাজার ৬১৭ জন আর প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে ছিলেন ১৫১ জন। এ ছাড়া সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে করোনা ও অন্যান্য বিষয় জানতে ফোনকল আসে ৬৮ হাজার ৯৮৬টি। অন্যদিকে গতকাল বিদেশ থেকে বিভিন্ন বন্দর হয়ে দেশে ঢুকেছেন মোট ৭৩৬ জন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here