বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের সেমিস্টার ফি মওকুফের দাবি

0
191

করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের মধ্যে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর সেমিস্টার ফি মওকুফের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন।

সোমবার রাজধানীর শাহবাগের জাতীয় জাদুঘরের সামনে নিরাপদ সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে এই দাবিতে মানববন্ধন করেন ছাত্র সংগঠনটির নেতাকর্মীরা।

মানববন্ধনে ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক অনিক রায়ের সঞ্চালনায় সভাপতির বক্তব্য দেন সংগঠনের সভাপতি মেহেদী হাসান নোবেল।

করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে মানুষের জীবন-জীবিকা যখন হুমকির মুখে সেই সময়ে দেশের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো শুধু সেমিস্টার ফি আদায়ের জন্য শিক্ষার্থীদের ওপর অনলাইনে ক্লাস, পরীক্ষা, কুইজ চাপিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ করেন ছাত্র ইউনিয়ন নেতারা।

দেশের এমন পরিস্থিতিতে বিভিন্ন প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে উচ্চ ইন্টারনেট ব্যয় বহন করে অনলাইন ক্লাস-পরীক্ষায় সংযুক্ত হওয়া অধিকাংশ শিক্ষার্থীদের পক্ষেই সম্ভব নয় বলে মন্তব্য করেন তারা।

ছাত্র ইউনিয়ন নেতাদের ভাষ্যমতে, ইতোমধ্যে অধিকাংশ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় সেমিস্টার ফি আদায় এবং সময়মতো তা পরিশোধ না করলে জরিমানার কথা উল্লেখ করে শিক্ষার্থীদের নোটিশ দিয়েছে।

বাংলাদেশের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ‘অধিকাংশ শিক্ষার্থীই’ মধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তান উল্লেখ করে ছাত্র ইউনিয়ন বলছে, এ পরিস্থিতিতে মধ্যবিত্ত পরিবারগুলোর যখন ‘তিনবেলা খেয়ে বেঁচে থাকা কঠিন’ সে সময় সন্তানের সেমিস্টার ফি ‘মড়ার উপর খাঁড়ার ঘা’ এর মতো নেমে এসেছে।

একে ‘অমানবিক সিদ্ধান্ত’ আখ্যা দিয়ে ছাত্র ইউনিয়নের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, “যেখানে প্রায় প্রত্যেকটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের গত বছরের উদ্বৃত্ত অর্থ দিয়ে শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারীদের বেতন পরিশোধ করা সম্ভব সেখানে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে অর্থ আদায় করার পেছনে অতিরিক্ত মুনাফা আদায়ের লোভ ছাড়া আর কোনো কারণ থাকতে পারে না।

“এরপরও যদি শিক্ষকদের বেতন-ভাতা প্রদানে অর্থের প্রয়োজন পড়ে তার জন্য সরকারের উচিত আর্থিক প্রণোদনা ঘোষণা করা। কিন্তু কোনোভাবেই শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে জোর করে ফি আদায় করা যাবে না।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here