করোনার টিকা নিতে চান না জোকোভিচ

0
396

এ যেন ‘গাছে কাঁঠাল, গোঁফে তেল’ অবস্থা। করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে টিকা আবিষ্কারের চেষ্টা শুরু হয়েছে, বিভিন্ন দেশে অন্তত ৭০টি টিকা আবিষ্কারের চেষ্টা চলছে কিন্তু আগামী বছরের আগে টিকা আবিষ্কারের আশাবাদ দিচ্ছেন না কেউই। বরং আপাতত ওষুধ বানানোতে মনোযোগ দেওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন অনেকে। আর এখনই কি না টিকা দেওয়া হলে কী হবে, না হবে সেটা নিয়ে ভাবতে শুরু করে দিয়েছেন নোভাক জোকোভিচ।

বিশ্ব টেনিসের বর্তমানের শীর্ষ তারকা যদিও টিকা নেওয়ার বিরোধী। ফলে ভবিষ্যতে টেনিসের বড় টুর্নামেন্টে অংশ নেওয়ার ক্ষেত্রে বিপাকে পড়ে যেতে পারেন জোকোভিচ। রোববার ফেসবুকে লাইভ এক চ্যাটে অংশ নেন ১৭ গ্র্যান্ড স্লামের মালিক। তখন টিকা নিয়ে টেনিস কোর্টে নামার প্রসঙ্গ উঠে এসেছিলাম। এ ব্যাপারে নিজের আপত্তির কথা কোনো রাখঢাক ছাড়াই জানিয়েছেন জোকোভিচ, ‘আমি টিকা নেওয়ার বিপক্ষে এবং আমি চাইব না কোথাও যেতে চাইলে কাউকে জোর করে টিকা দেওয়া হোক।

বিশ্বে এখনো অনেক ব্যক্তি টিকা নিতে চান না। সেটা তাঁদের ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত বলে মেনে নেওয়া হয়। কিন্তু বড় টুর্নামেন্টে সবার স্বাস্থ্যকেই প্রাধান্য দেওয়া হবে। আর সে ক্ষেত্রে খেলার আগে টিকা নেওয়া বাধ্যতামূলক করা হতেই পারে। আর সে ক্ষেত্রে নিজের টেনিস ভবিষ্যৎ নিয়ে নতুন করে ভাববেন ‘জোকার’। অন্তত ফেসবুকে সে ইঙ্গিতই দিয়েছেন, ‘যদি এটা বাধ্যতামূলক করা হয়, কী হবে? আমাকে একটা সিদ্ধান্ত নিতে হবে। এ ব্যাপারে আমার নিজস্ব ভাবনা আছে। সে ভাবনা কোনো একপর্যায়ে বদলাবে কিনা সেটা অবশ্য জানি না।’

এ বছর টেনিস শুরু হওয়ার সম্ভাবনা যদিও দেখছেন না জোকোভিচ, যদি জুলাই, আগস্ট বা সেপ্টেম্বরে মৌসুম আবার চালু হয়, তাহলে টিকা নেওয়া বাধ্যতামূলক হতে পারে। যেহেতু তখন আমরা গৃহবন্দী অবস্থা থেকে মাত্র বের হব কিন্তু আমার মনে হয় না সেটা সম্ভব। এখনো কোনো টিকা আবিষ্কৃত হয়নি।

এ বছর এখন পর্যন্ত শুধু অস্ট্রেলিয়ান ওপেন হতে পেরেছে। জোকোভিচের অস্ট্রেলিয়ান রাজত্ব দীর্ঘস্থায়ী হওয়ার পর থেকেই অবশ্য টেনিসে অলস সময় কাটছে এখন। এর মাঝেই উইম্বলডন বাতিল করা হয়েছে। ফ্রেঞ্চ ওপেন নির্ধারিত সময়ের চেয়ে অনেক পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here