ফোনে ডেকে নিয়ে কুপিয়ে হত্যা গাজীপুরে

0
326

গাজীপুর নগরীতে ‘পূর্ব শত্রুতার জেরে’ এক যুবককে ফোনে ডেকে নিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে একদল লোক।

সোমবার সকাল ১১টার দিকে নগরীর দক্ষিণ চতর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত রাব্বী বাবু (২৬) দক্ষিণ চতর এলাকার আব্দুল মান্নানের ছেলে।

স্বজনদের বরাত দিয়ে গাজীপুর মহানগর পুলিশের সদর থানার এসআই মো. রিয়াজ বলেন, সকালে ঈদের নামাজ শেষে রাব্বী গাজীপুর সিটি করপোরেশনের কবরস্থানে বাবার কবর জিয়ারত করতে যান।

“ওই সময় চাকমা বাবু নামের এক যুবকের মোবাইল ফোন পেয়ে নগরের শিমুলতলী বাজার সংলগ্ন দক্ষিণ চতর এলাকার স্বপ্ননীড় আবাসিক প্রকল্প এলাকায় যান।”

তিনি বলেন, এ সময় কয়েকজন লোক ধারালো অস্ত্রে রাব্বিকে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে রাব্বির মা ও বোনসহ এলাকাবাসী উদ্ধার করে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের বোন মীম বলেন, “হামলার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আমি ও আমার মা যাই। তখনও রাব্বি মারা যায়নি। গুরুতর আহত অবস্থায় রাব্বি আমাদের বলে-চাকমা বাবু সেখানে ফোনে ডেকে নিয়ে গেছে। পরে রাজ্জাক, সজীব, শুভ, চোরা বাবু, জাহিদ রিংকু, খায়রুলসহ কয়েকজন তাকে কুপিয়ে ফেলে রেখে গেছে।”

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক হিতের এক স্বজন বলেন, রাব্বী স্থানীয় এক ভাঙ্গারি ব্যবসায়ীর কাছে দুই লাখ টাকা পেতেন। ওই টাকা পরিশোধ না করায় দুই বছর আগে রাব্বী প্রতিপক্ষ ভাঙ্গারি ব্যবসায়ীর দুই সহযোগীকে মারধর করেছিলেন। এ ঘটনায় রাব্বীর বিরুদ্ধে গাজীপুর সদর থানায় মামলা হয়। এ নিয়ে তাদের মধ্যে শত্রুতা চলছিল।

সদর থানার ওসি আলমগীর হোসেন ভূইয়া বলেন, নিহতের মাথা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। বিকালে হাসপাতাল মর্গে লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করা হয়।

“পাওনা টাকা নিয়ে স্থানীয় একজনের সঙ্গে শত্রুতর তথ্য পাওয়া গেছে। তবে কী কারণে এ হত্যাকাণ্ড হয়েছে তা তদন্ত ছাড়া বলা যাচ্ছে না।” 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here