জুয়ার প্রতিবাদ করায়’ সংঘর্ষ, ছাত্রকে গুলি করে হত্যা

0
380

জুয়া খেলার প্রতিবাদ কারার’ জেরে নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলায় সংঘর্ষের মধ্যে এক স্কুলছাত্রকে গুলি করে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন।

বুধবার বিকালে মেঘনা নদীবেষ্টিত দুর্গম কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের ইজারকান্দিতে এই ঘটনা ঘটে।

নিহত আইয়ুব আলী (১৫) ইজারকান্দির জালাল উদ্দিনের ছেলে এবং কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র। সে ইজারকান্দি আলোর সেতু নামের একটি পাঠাগারের দেখাশোনার দায়িত্বে ছিল।

নিহতের পরিবারের দাবি, জুয়া খেলার প্রতিবাদ করায় তাকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, সকালে কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি সাদ্দাম হোসেনের সমর্থক শাহজাহানসহ ৫/৬ জন মিলে ইজারকান্দি এলাকায়  আলোর সেতু পাঠাগারের সামনে জুয়ার আসর বসান। এতে আইয়ুব আলী জুয়া খেলায় বাধা দিলে জুয়াড়িদের সঙ্গে তার বাগবিতণ্ডা ও হাতাহাতি হয়। এ নিয়ে উভয়পক্ষের মধ্যে উত্তেজনার সৃষ্টি হলে স্থানীয়রা ঘটনাটি মীমাংসার চেষ্টা করেন।

নিহত আইযুব আলীর খালাত ভাই আরিফ হোসেন অভিযোগ করেন, “বিকালে কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি সাদ্দাম হোসেন তার লোকজন নিয়ে আব্দুল হকের বাড়িতে হামলা চালান। এ সময় উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে আইয়ুব আলী নিহত হন।”

আরিফ বলেন, “ছাত্রলীগ নেতা সাদ্দাম হোসেন বন্ধুক দিয়ে আইয়ুবের মাথায় গুলি করলে সে ঘটনাস্থলে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। পরে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।”

অভিযোগ অস্বীকার করে ছাত্রলীগ নেতা সাদ্দাম হোসেন বলেন, “বিকেলে স্থানীয় জালাল ও আব্দুল হক মেম্বারের লোকজন যাতে মারামারি না করে সেজন্য তিনি ঘটনাস্থলে যান। ওই সময় আব্দুল হক মেম্বারের লোকজন মারামারি শুরু করেন। তাদের গুলিতে স্কুলছাত্র আইয়ুব মারা যায়।”

আব্দুল হক মেম্বারের লোকজন তার ও তার পক্ষের লোকজনের অন্তত ১০টি বাড়ি ভাংচুর করেছে বলেও সাদ্দামের অভিযোগ।

আড়াইহাজার থানার ওসি নজরুল ইসলাম বলেন, স্কুলছাত্র আইয়ুব আলী আলোর সেতু পাঠাগার ও ওইখানে আম গাছ পাহাড়া দিত। ওই পাঠাগারের সামনে জুয়া খেলায় বাধা ও আম পাড়তে বাধা দেওয়া নিয়ে বাগবিতণ্ডার ঘটনা ঘটে।

খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে; এই ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে বলে ওসি জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here