ফ্রান্সে করোনায় আক্রান্ত বাংলাদেশি সাঁতারু?

0
307

আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির বৃত্তি নিয়ে ফ্রান্সে থাকা বাংলাদেশের সাঁতারু আরিফুল ইসলাম অসুস্থ হয়ে পড়েছেন।কয়েক দিন ধরেই আরিফুলের প্রচণ্ড জ্বর। শরীরও প্রচন্ড ব্যাথা। বেশ কয়েকবার বমিও করেছেন।

সব রকম উপসর্গ থাকায় শেষ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন কি না, তা নিয়ে সংশয়ে আছেন বাংলাদেশ নৌবাহিনীর সাঁতারু। এরই মধ্যে করোনা পরীক্ষা করতে দিয়েছেন তিনি। তবে এখনো কোনো ফল পাননি।

ফ্রান্স থেকে মুঠোফোনে আরিফুল বলছিলেন, ‘কয়েক দিন আগে সুইমিং ক্লাব থেকে ফেরার পর হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়ি। কাঁপুনি দিয়ে জ্বর আসে। শরীরও প্রচণ্ড ব্যথা ছিল। এর মধ্যে এক রাতে জ্বর ওঠে ১০২ ডিগ্রি। আমার করোনা হয়েছে কি না, তা জানতে ডাক্তারের পরামর্শে পরীক্ষা করিয়েছি। এখনো সেটার ফল হাতে পাইনি। এখন অবশ্য একটু ভালো আছি। যদিও মুখে কোনো রুচি নেই। খাবার খেতে পারছি না। এখন ডাক্তারের পরামর্শমতোই বাইরে বের হচ্ছি না।’

ফ্রান্সে আরিফুল রুয়া শহর থেকে ২৫ কিলোমিটার দূরের একটি গ্রামে থাকেন। এই গ্রাম থেকে পাবলিক বাসে চড়ে দ্য ভাইকিং রুয়েন ক্লাবে অনুশীলনে যেতে হয় আরিফুলকে। টোগো ও চাদের দুজন সাঁতারুর সঙ্গে একই ডরমেটরিতে থেকে ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর মাস থেকে প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন তিনি। আরিফুলের ধারণা, গণপরিবহনে ওঠার জন্য হয়তো এমনটা হতে পারে, ‘এখান থেকে শহরে যেতে হলে বাসে চড়তে হয়। তা ছাড়া প্রায়ই আমি বাজার করতে শহরের দোকানে যাই। বুঝতে পারছি না কীভাবে জ্বর এসেছে। তবে এখন যেহেতু একটু ভালো আছি, আশা করছি কোনো সমস্যা হবে না।’

অসুস্থতার সংবাদ ফেডারেশনকে এখনো জানাননি আরিফুল। তবে সাঁতার কোচ হামিদুল ইসলামকে জানিয়েছেন কিশোরগঞ্জের নিকলির সাঁতারু, ‘হামিদ স্যারকে বলেছি আমার জ্বরের কথা। এ ছাড়া বাড়িতে সব সময় কথাবার্তা হচ্ছে। প্রথম দিকে একটু ভয় পেয়েছিলাম। তবে এখন সেই ভয় কেটে গেছে।’

এই দুঃসময়েও একটা ভালো খবর দিলেন আরিফুল, ‘আমার অলিম্পিক বৃত্তির মেয়াদ আরও এক বছর বেড়েছে। টোকিও অলিম্পিক পিছিয়ে যাওয়ার কারণে আগামী বছর সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বৃত্তির মেয়াদ বাড়ানোর আবেদন করেছিলাম। ওরা আমার আবেদনে সাড়া দিয়েছে। তাই আগামী বছর পর্যন্ত এখানেই থাকছি।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here