তরুণ অভিবাসী বিতাড়নের আশা ছাড়ছেন না ট্রাম্প

0
286

‘ড্রিমার’ বা বৈধ কাগপত্রবিহীন তরুণ অভিবাসীদের ফেরত পাঠানোর চেষ্টায় যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্ট রুল জারি করলেও এখনই হাল ছাড়ছেন না মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। শিগগিরই ‘বাড়তি কাগজপত্র’ আদালতে দাখিল করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

শুক্রবার এক টুইটে ট্রাম্প বলেন, ডিএসিএ’র (ডিফার্ড অ্যাকশন ফর চাইল্ডহুড অ্যারাইভালস) (কাগজপত্র) পুনরায় দাখিল করতে বলেছেন সুপ্রিম কোর্ট। কোনও কিছুতেই হার-জিত হয়নি, অনেকটা ফুটবল খেলার মতো তারা একটা ‘ধাক্কা’ দিয়েছে (আশা করি তারা আমাদের মহান আমেরিকান পতাকার পাশে দাঁড়াবে)।

তিনি বলেন, ‘গতকাল সুপ্রিম কোর্টের রুল ও অনুরোধ মোতাবেক আমরা বাড়তি কাগজপত্র জমা দেবো।’ তবে ‘বাড়তি কাগজপত্র’ বলতে কী বুঝিয়েছেন তা ব্যাখ্যা করেননি মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

এর আগে, গত বৃহস্পতিবার ডিএসিএ বাতিলের পরিকল্পনা ‘বেআইনি’ বলে ঘোষণা দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের সর্বোচ্চ আদালত।

এ রুলের ফলে অন্তত সাড়ে ছয় লাখ তরুণ অভিবাসী বা ড্রিমার, যারা শিশু বয়সে বৈধ কাগজপত্র ছাড়াই যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করেছিলেন, তাদের দেশটিতে বসবাস ও কাজ করার অনুমতি বহাল থাকল।

২০১২ সালে ওবামা প্রশাসন তরুণ অভিবাসীদের জন্য এ সুবিধা চালু করেছিল। তবে ট্রাম্প ক্ষমতায় আসার পর থেকেই ডিএসিএ বাতিলের জন্য উঠে পড়ে লাগেন। পরে বিষয়টি গড়ায় আদালত পর্যন্ত। ট্রাম্প প্রশাসন কেন ডিএসিএ বাতিল করতে চায় সে বিষয়ে উপযুক্ত ব্যাখ্যা না থাকার কারণে সেসময় এ বিষয়ে রুল জানি করেন নিম্ন আদালত। বৃহস্পতিবার নিম্ন আদালতের সিদ্ধান্তেই অটল থাকার ঘোষণা দেন মার্কিন সুপ্রিম কোর্ট।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here