যে কারণে সুশান্তের প্রতি বিরক্ত হয়েছিলেন ধোনি

0
386

সুশান্ত সিং রাজপুত, বলিউডের দারুণ সম্ভাবনাময় এক তারকা অভিমানে চলে গেলেন সবাইকে ছেড়ে। তার আত্মহত্যার খবরটি এসেছে ‘বিনা মেঘে বজ্রপাতে’র মতো। এত হাসিখুশি একটা মানুষ কি করে আত্মহত্যা করলেন? এই প্রশ্ন এখনও ঘুরছে ভক্তদের মনের মধ্যে।

সামনে তার উজ্জ্বল ক্যারিয়ার পড়ে ছিল। টেলিভিশন থেকে বলিউডে এসেই বাজিমাত করেছিলেন। একের পর এক সাফল্য দেখতে থাকেন। যার মধ্যে সবচেয়ে বেশি প্রশংসা আর ব্যবসায়িক সাফল্য এসেছে ভারতের দুইবারের বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনির বায়োপিক ‘ধোনি-দ্য আনটোল্ড স্টোরি’ করে।

লুক চেঞ্জ থেকে অভিনয়! ধোনির বায়োপিক দিয়ে সুশান্ত সিং রাজপুত প্রমাণ করেছিলেন, তিনি লম্বা রেসের ঘোড়া ৷ পর্দার ধোনিকে বাস্তবে আনতে ৯ মাস হাড়ভাঙা পরিশ্রম করতে হয়েছিল সুশান্তকে।

খোদ ধোনিই সুশান্তের হেলিকপ্টার শট দেখে বলেছিলেন, তুমি তো একদম কপি করে দিলে! বেশ কয়েকটি অনুষ্ঠানে সুশান্তের অভিনয়ের প্রশংসা করেন ধোনি। তবে একবার তিনি বেশ বিরক্তও হয়েছিলেন। বিরক্তিটা অবশ্য বড় কিছু ছিল না, নিছক মজা করেই সুশান্তের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছিলেন ভারতের সাবেক অধিনায়ক।

সিনেমার মুক্তির আগে প্রমোশনের কাজে বেশ কয়েক জায়গায় একসঙ্গে হতে হয়েছে ধোনি-সুশান্তকে। কোনো এক অনুষ্ঠানে ধোনিকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, পর্দায় তার জীবন কাহিনী আসছে, ব্যাপারটায় নার্ভাস কি না?

জবাবে ধোনি বলেন, ‘বেশি নার্ভাস তো থাকার কথা সুশান্তের। কারণ ভেতরে কেমন অনুভব করছিল সেটা দর্শকদের বিশ্বাসযোগ্য করে তোলার মতো ফুটিয়ে তুলতে হয়েছে তাকে। এজন্য সে আমাকে অনেক জ্বালিয়েছে। সে আমাকে শুধু জিজ্ঞেস করতো, ওই সময় আমার অনুভূতি কেমন ছিল, এখন কেমন লাগছে, এটা সেটা। এমনকি আমি তাকে বলেছিলাম, তুমি তো প্রশ্ন করেই যাচ্ছো। তবে সত্যি বলতে, আমরা একসঙ্গে অনেক বেশি সময় কাটানোর সুযোগ পাইনি।’

ধোনি যোগ করেন, ‘তবে সে এই সিনেমার জন্যে আসলেই কষ্ট করেছে। কারণ এই সিনেমার একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশজুড়ে ক্রিকেট। হয়তো আমরা সবাই ক্রিকেট খেলি। কিন্তু যখন সেটা পর্দায় আনতে হয়, অনেক কিছু শেখার আছে। বিশেষ করে ক্রিকেট শট। সিনেমায় সে হেলিকপ্টার শট খেলেছে, এটা ঠিক যেন রেপ্লিকা ছিল। সুশান্ত অনেক পরিশ্রম করেছে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here