গিনেস বুকে নাম উঠতে পারে ‘রানির’

0
75
post 2658

কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে দেশে কোন গরু বড়, কত বেশি ওজনদার, কত বেশি দাম-এসবই নিয়ে যখন আলোচনার মুখরতা, তখন বিপরীত খবর পাওয়া গেল সাভারের আশুলিয়া থেকে। সবচেয়ে বড় কিংবা ওজনওয়ালার জন্য নয় বরং এই সুনাম ছড়িয়েছে সবচেয়ে ছোট হওয়ায়। পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট গরু হিসেবে গিনেস বুকে নাম উঠতে পারে ‘রানির’।

গরুটির নাম ‘রানী’। উচ্চতা মাত্র ২০ ইঞ্চি। লম্বায় ২৭ ইঞ্চি। এই খর্বাকৃতির গরুটির ওজন মাত্র ২৬ কেজি। বয়স প্রায় দুই বছর। দেখতে একটি বন বিড়ালের মতো। কোরবানি দেওয়ার উপযুক্ত। দাম উঠেছে সাড়ে ৫ লাখ টাকা পর্যন্ত। সাভারের আশুলিয়ার চারিগ্রামের এই ‘রাণী’ হলো পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট গরু। বক্সার ভূট্টি জাতের এই খর্বাকৃতির গরুটিকে বিশ্ব রেকর্ডে জায়গা করে দিতে ইতোমধ্যে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করেছে এটির মালিক সাভারের ‘শিকড় এগ্রো লিমিটেড’ । পরীক্ষা নিরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলে বিশ্বে ছোট গরুর রেকর্ডে ভারতকে পেছনে ফেলতে যাচ্ছে বাংলাদেশ।

গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী-এখন পর্যন্ত বিশ্বের সবচেয়ে ছোট গরুটি রয়েছে ভারতের কেরালা রাজ্যে। ৪ বছর বয়সী ওই গরুটি লাল রঙের। যেটির উচ্চতা ২৪ ইঞ্চি (২ ফুট)। আর ওজন ৪০ কেজি। গরুটির নাম নাম ‘মানিকিয়াম’। ভারতের গরুটি ল্যাব্রাডার কুকুরের চেয়েও ছোট। দক্ষিণ ভারতের রাজ্য কেরালার আথোলিতে বাস মানিকিয়ামের। এর মালিক অক্ষয় এনভি নামের এক ব্যক্তি। এদিকে সাভারের আশুলিয়ার চারিগ্রামে পাওয়া গরু ‘রাণী’ ভারতের ‘মানিকিয়াম’ এর চেয়েও কম ওজন ও উচ্চতার।

শিকড় এগ্রোর মালিক কাজী আবু সুফিয়ান বলেন, দুই বছর আগে নওগাঁর এক খামারির থেকে গরুটি ক্রয় করি। রাণীকে দিনে দুই বেলা খাবার দিতে হয়। সাধারণ গরুর তুলনায় এটির খাবার অনেকটা কম প্রয়োজন হয়।

স্থানীয় এক পশু চিকিৎসক বলেন, ছোট্ট এই গরুটি পুরোপুরি সুস্থ রয়েছে। এর উচ্চতা এবং ওজন আর বাড়ার সম্ভাবনা নেই। খামারে আরও চারটি ছোট গরু থাকলেও তা এতো ছোট নয়। রানীই সবচেয়ে ছোট। ছোট এ গরুটির বিক্রয় মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৫ লাখ টাকা। তবে কাজী আবু সুফিয়ান এটি বিক্রি করতে ইচ্ছুক নন। শুক্রবার গিনেস বুকে নাম ওঠানোর জন্য আবেদন করেছেন রানীর মালিক কাজী আবু সুফিয়ান। সাড়াও পেয়েছেন তিনি। তবে গিনেস বুকে নাম ওঠাতে অপেক্ষা করতে হবে আরও কিছুদিন।

তিনি বলেন, ওরা ৯০ দিনের মধ্যে অফিসিয়ালি নোটিশ করবে। লম্বা বা উচ্চতা- আমরা যেদিক দেখি না কেন রানী সবদিকেই এগিয়ে আছে। সবচেয়ে ছোট। এর বয়স অলরেডি ২৩ মাস। এটা দেখলে বুঝবেন, বড় হওয়ার সুযোগও নেই। দুই দাঁত হয়ে যাওয়ায় এটা আর বড় হওয়ার সুযোগ নেই। বয়স অনুযায়ী এটাকে কোরবানি দেওয়ার উপযুক্ত। গরুটি প্রজননের উপযুক্তও হয়েছে। ছোট হওয়ায় ডাক্তারের পরামর্শে প্রজনন করা হয়নি। এটি দেখতে ছাগলের থেকেও ছোট। একটি বন বিড়ালের মতো সাইজ এটির।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here