জ্যাকব জুমা কারাগারে : দক্ষিণ আফ্রিকায় সহিংসতায় নিহত বেড়ে ৭২

0
78

দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক প্রেসিডেন্ট জ্যাকব জুমাকে কারাগারে পাঠানোর প্রতিবাদে দেশটিতে ছড়িয়ে পড়া সহিংসতায় এ পর্যন্ত ৭২ জন নিহত হয়েছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে এ কথা জানানো হয়েছে।

দেশটির বৃহত্তম শহর সোয়েটোর একটি শপিং সেন্টারে সোমবার রাতে লুটপাটের সময় পদদলিত হয়ে ১০ জনের মৃত্যু হয়। এ ছাড়া গ্রেপ্তার হয়েছে এক হাজার ২৩৪ জন।

এক বিবৃতিতে পুলিশ জানিয়েছে, সহিংসতায় উসকানিদাতা ১২ জনকে চিহ্নিত করেছে তারা।

গত শনিবার থেকে দক্ষিণ আফ্রিকায় সহিংসতা, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা বেড়ে গেছে। বন্ধ হয়ে গেছে মহাসড়ক। মোতায়েন করা হয়েছে সেনাবাহিনীর সদস্যদের।

দেশটির প্রেসিডেন্ট সিরিল রামাফোসা এই সংঘাতময় পরিস্থিতিতে ১৯৯০ সালের পর দেশ সবচেয়ে শোচনীয় অবস্থার সম্মুখীন হয়েছে বলে উল্লেখ করেছেন।

কজুলু-নাটাল ও গটেং প্রদেশে সংঘাতের মাত্রা বেশি। মন্ত্রীরা বলেছেন, এই মাত্রায় লুটপাট চলতে থাকলে অচিরেই এসব এলাকায় খাদ্যসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের সরবরাহে সংকট দেখা দেবে। তবে জরুরি অবস্থা জারির সম্ভাবনা নাকচ করে দিয়েছেন তারা।

অন্যদিকে ডারবানের একটি ভবনে মঙ্গলবার অগ্নিকাণ্ডের সময় এক শিশুকে উপর থেকে ছুড়ে ফেলার চিত্র ধরা পড়ে বিবিসির ক্যামেরায়। ওই ভবনের নিচতলায় দোকানপাটে লুটপাটের পর আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। ফলে নিচে দাঁড়িয়ে থাকা লোকজন আহ্বান জানালে উপর থেকে মা শিশুটিকে ফেলে দেন। শিশুটি নিরাপদে রয়েছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

দুর্নীতির মামলা চলাকালে আদালত অবমাননার দায়ে ১৫ মাসের কারাদণ্ড পাওয়ার কয়েকদিন পর পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেন সাবেক প্রেসিডেন্ট জ্যাকব জুমা। পরে তাঁকে কারাগারে পাঠানো হয়। এর প্রতিবাদে দেশজুড়ে জুমার অনুসারীরা বিক্ষোভে ফেটে পড়ে। বিক্ষোভ প্রথম দানা বাঁধে জুমার নিজ প্রদেশ কজুলু-নাটালে। পরে তা দেশজুড়ে ছড়িয়ে পড়ে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here